আপডেট : ১৭ মে, ২০২০ ১৮:২৯

শাশুড়িকে বের করে দিলো দুই ছেলের বউ, অত:পর...

অনলাইন ডেস্ক
শাশুড়িকে বের করে দিলো দুই ছেলের বউ, অত:পর...

ফেনীর সোনাগাজীতে ফিরোজা বেগম নামে এক বৃদ্ধাকে বাড়ির বাইরে ফেলে রাখার অভিযোগ উঠেছে দুই প্রবাসী ছেলের বউদের বিরুদ্ধে। তবে বৃদ্ধার দুই ছেলেই বিদেশে রয়েছেন।

শনিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ওই বৃদ্ধাকে সড়কে ফেলে রাখা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার মতিগঞ্জ ইউপির সুজাপুর গ্রামে। অভিযুক্তরা হলেন- ওই গ্রামের লোমিমিয়াজি বাড়ির প্রবাসী মোস্তফার স্ত্রী পারভিন আক্তার ও ছোট ছেলে প্রাবাসী মো. ফারুকের স্ত্রী লিপি আক্তার।

স্থানীয়রা জানায়, সড়কে ওই বৃদ্ধাকে কাঁদতে দেখে মতিগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান মো. রবিউজ্জামান বাবুকে খবর দিলে ঘটনাস্থলে আসেন। পরে প্রতিবেশীদের সামনে বৃদ্ধার দুই পুত্রবধূকে ডাকা হয়। এ সময় তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার হুঁশিয়ারি দিয়ে চেয়ারম্যান ওই বৃদ্ধাকে নিজের বাড়িতে নিতে চান। একপর্যায়ে পুত্রবধূরা নিজেদের ভুল স্বীকার করে শাশুড়িকে ঘরে তুলে নেন। এছাড়া চেয়ারম্যানের নির্দেশক্রমে ভরণপোষণ হিসেবে প্রত্যেক ছেলেকে এক মাস করে দায়িত্ব দেয়া হয়।

চেয়ারম্যান রবিউজ্জামান বলেন, দুই প্রবাসী ছেলে ও তাদের বউ দায়িত্ব নিতে ব্যর্থ হলে ওই বৃদ্ধাকে আমার বাড়িতে নিয়ে আসব। বৃদ্ধা মায়ের যেন কোনো অযত্ন না হয় সেজন্য ওই বাড়ির মুরুব্বি আব্দুর রফ ও সমাজের সভাপতি সাহাব উদ্দিনকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

এদিকে রোববার সকালে বৃদ্ধা ফিরোজা বেগমের জন্য এক মাসের খাবার ওই বাড়িতে পৌঁছে দেন চেয়ারম্যান মো. রবিউজ্জামান বাবু।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে