আপডেট : ২ এপ্রিল, ২০২০ ০৭:৪৪

বিশ্বের সেরা ১০ ধনী ক্রিকেটারের তালিকায় সাকিব!

অনলাইন ডেস্ক
বিশ্বের সেরা ১০ ধনী ক্রিকেটারের তালিকায় সাকিব!

১০) মাইকেল ক্লার্ক: খেলোয়াড় জীবনে মাইকেল ক্লার্ক বিখ্যাত ছিলেন তাঁর ব্যাটিং ও ফিল্ডিংয়ের জন্য৷ অস্ট্রেলিয়ার অন্যতম জয়প্রিয় ক্রিকেটারও ছিলেন তিনি৷ লারা বিঙ্গলের সঙ্গে তাঁর প্রেম কাহিনী একসময় অস্ট্রেলিয়ান মিডিয়ার ‘হট টপিক’ ছিল৷ তিনি অবসর নিয়েছেন বছর দুয়েক আগেই৷ তবে আয়ের দিক দিয়েও এখনও সেরা প্রাক্তন অজি অধিনায়ক৷ ২০১৭ তাঁর মোট আয় প্রায় তিন মিলিয়ন ডলার৷

৯) এবি ডি’ভিলিয়ার্স: এবি ডি’ভিলিয়ার্স ব্যাট হাতে নামা মানেই বিপক্ষ বোলারদের হৃদকম্পন শুরু হওয়া৷ দেশ হোক বা আইপিএল, টেস্ট থেকে টি-২০ সব জায়গাতেই সমান সফল ক্রিকেটের সুপারম্যান৷ ক্রিকেটের পাশাপাশি অন্যান্য খেলাতেও দক্ষ ছিলেন তিনি৷ প্রোটিয়া অধিনায়ক তাই নিজের দেশেই নয় ভারতেও অসম্ভব জনপ্রিয়৷ আয়ের ব্যাপারেও তিনি পিছনে ফেলেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার অন্যান্য ক্রিকেটারকে৷ ২০১৭ তাঁর আয় প্রায় ৩.৬ মিলিয়ন ডলার৷

৮) যুবরাজ সিং: ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপ৷ সুপার এইটের প্রথম ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে হার মেনেছে টিম ইন্ডিয়া৷ তাই সেমিফাইনালে উঠতে হলে পরের ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে জিততেই হবে ধোনির দলকে৷ সেই ম্যাচে ভারতের ‘মুশকিল আসান’ রুপে হাজির হয়েছিলেন যুবরাজ সিং৷ সুয়ার্ট ব্রডের ওভারে মারা ছটা ছক্কাই বদলে দিয়েছিল ওই ম্যাচের নক্সা৷ আর টিম ইন্ডিয়া পেয়েছিল বাড়তি আত্মবিশ্বাস৷ যা টুর্নামেন্ট জিততে তাদের সাহায্য করেছিল৷ এই ম্যাচের পর থেকে যুবরাজের গায়ে লেগে গিয়েছিল ‘মিঃ সিক্সার’ এর তকমা৷ এরপর ২০১১ একদিনের বিশ্বকাপেও ম্যান অফ দ্য টুর্নামেন্ট হয়েছিলেন ‘পাঞ্জাব কা পুত্তর’৷ এরপর ক্যান্সারের জন্য দল থেকে বাদ পড়েছিলেন তিনি৷ এই মারণ রোগ জয় করে আবার দলে ফিরেছেন তিনি৷ এহেন যুবরাজের ফ্যান স্বয়ং বিরাট কোহলিও৷ আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে দামি খেলোয়াড়ও হয়েছিলেন তিনি৷ ‘ব্লু’ জার্সিতে ৩০০ বেশি ম্যাচ খেলা যুবরাজ এই মুহূর্তে ভারতের অন্যতম ধনী খেলোয়াড়৷ ২০১৭ বিজ্ঞাপন ও খেলা থেকে তাঁর মোট আয় ৪ মিলিয়ন ডলার৷

৭) গৌতম গম্ভীর: মহেন্দ্র সিং ধোনির অধিনায়কত্বে অনেক স্মরণীয় মুহূর্ত কাটিয়েছে টিম ইন্ডিয়া৷ আর সেই মাহি জমানার অন্যতম সফল সৈনিক গৌতম গম্ভীর৷ টি-২০ ও একদিনের বিশ্বকাপ ফাইনালে তাঁর খেলা দুটিই অনবদ্য ইনিংসই ভারতকে জয়ের পথ দেখিয়েছিল৷ তাঁর ব্যাটিংয়ে মুগ্ধ হয়ে সতীর্থ বীরেন্দ্র সেহওয়াগ তার নাম দিয়েছিলেন ‘দ্য সেকেন্ড ওয়াল’৷ ২০০৯-১০ টানা পাঁচ টেস্টে সেঞ্চুরি করে রেকর্ড বুকে নাম তুলেছিলেন তিনি৷ তার নেতৃত্বে দু’বার আইপিএলও জিতেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স৷ দর্শক মহলেও অসম্ভব জনপ্রিয় গোতি৷ এহেন গম্ভীর আয়ের নিরিখে দেশের অন্যতম সেরা ক্রিকেটার৷ ২০১৭ তার মোট আয় পাঁচ মিলিয়ন ডলার৷

৬) শাহিদ আফ্রিদি: শাহিদ ‘বুমবুম’ আফ্রিদি৷ তাঁর নামটাই যথেষ্ঠ৷ নিজের দিনে যেকোনও দলকে একাই হারিয়ে দিতে পারেন পাকিস্তানের ‘নায়ক’৷ গ্যালারি থেকে নারীমহল সবজায়গাতেই সমান জনপ্রিয় আফ্রিদি৷ ২০১৭ ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছেন ‘বুমবুম’৷ অবসর নিলেও এই মুহূর্তে আয়ের নিরিখে পাকিস্তানের সবচেয়ে ধনী ক্রীড়াবিদ তিনি৷ চলতি বছরে তাঁর মোট আয় ৫.৯ মিলিয়ন ডলার৷

৫) শেন ওয়াটসন: ২০০৩ বিশ্বকাপে স্টিভ ওয়াকে টপকে জাতীয় দলে জায়গা পেয়েছিলেন শেন ওয়াটসন৷ তখন অনেকে আশ্চর্য হয়েছিলেন যে শেন ওয়াটসনটা কে? কিন্তু অজি নির্বাচকরা তাঁর উপর ভরসা রেখে ভূল করেননি সেটা প্রমাণ পরবর্তী কালে প্রমাণ করেছিলেন ওয়াটসন৷ তিনটি বিশ্বকাপ জিতে রিকি পন্টিং,গ্লেন ম্যাকগ্রার মতো কিংবদন্তিদের সঙ্গে একই আসনে বসেছেন এই অলরাউন্ডার৷ এমনিতে ওয়াটসন পরিচিত ছিলেন তাঁর মারকুটে ব্যাটিং ও নিয়ন্ত্রিত পেস বোলিংয়ের জন্য৷ আইপিএলে দু’বার মোস্ট ভ্যালুয়েবল খেলোয়াড়ও নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি৷ জাতীয় দল থেকে অবসর নিলেও এহেন ওয়াটসন আয়ের নিরিখে এখনও অস্ট্রেলিয়ার সেরা ক্রিকেটার৷ ২০১৭ তাঁর মোট আয় ৬ মিলিয়ন৷

৪) ক্রিস গেইল: ক্রিস গেইল৷ এই মুহূর্তে ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটের মুখ তিনি৷ পরিসংখ্যান অনুযায়ী টি ২০ সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যান গেইল৷ শুধু খেলার মাঠই নয় একজন পার্টি লাভার হিসেবেও তিনি বিশ্বখ্যাত৷ টি ২০ সবদেশেরই ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগেই খেলেছেন তিনি৷ তাই বছরের শেষে বেশ মোটা টাকা আয়ও করেন তিনি৷ ২০১৭ তাঁর মোট আয় ৭.৫ মিলিয়ন ডলার৷

৩) সাকিব আল হাসান: বিশ্বের ধনি ক্রিকেটারের তালিকায় বাংলাদেশি খেলয়ারের নাম পূর্বে কখনো দেখা যায়নি। এই প্রথমবার এমনটাই ঘটল বাস্তবে। সাকিব আল হাসান বিশ্বের সেরা ধনী ক্রিকেটারের শীর্ষে চলে এসেছেন। সাম্প্রতিক এক জরিপে উঠে এসেছে বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থ উপার্জনকারী ক্রিকেটার হলেন সাকিব আল হাসান। তার সম্পদের পরিমাণ ৩৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার (বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ২৭৫ কোটি)।

২) মহেন্দ্র সিং ধোনি: ক্যাপ্টেন্সি ছাড়লেও ধোনিকে ছাড়া ভারতের ওয়ান ডে দল এখনও ভাবা যায়না৷ কারণ তার ফিনিশিং স্কিল যেকোনও মুহূর্তে ঘুরিয়ে দিতে পারে ম্যাচের মোড়৷ তাই দর্শকদের কাছে অসম্ভব জনপ্রিয় ‘ক্যাপ্টেন কুল’৷ এই মুহূর্তে তাঁর আয়ও মন্দ নয়৷ ২০১৭ মরশুমে মোট ২৮.৭ মিলিয়ন ডলার আয় করেছেন তিনি৷

১) বিরাট কোহলি: এই মুহূর্তে ভারতীয় ক্রিকেটের ‘পিন আপ’ বয় বিরাট কোহলি৷ তাই আয়ের নিরিখে বিরাটের স্থান দেশের স্পোর্টসম্যানদের মধ্যে উপরের সারিতেই৷ এক একটি বিজ্ঞাপন পিছু তিনি নেন ৫ কোটি করে৷ ফোবর্সের হিসাব অনুযায়ী বেশ কিছুদিনের মধ্যেই শাহরুখ খানকেও টপকে যাবে তাঁর আয়৷ ২০১৭ তাঁর মোট আয় ৬০ মিলিয়ন ডলার৷

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/ধরা  

উপরে