আপডেট : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২২:৪৩

সব রেকর্ড ভেঙে দিলেন নিশো

অনলাইন ডেস্ক
সব রেকর্ড ভেঙে দিলেন নিশো

বাংলাদেশ তো বটেই, বাংলা নাটকের ইতিহাসে দ্রুততম ইউটিউব ভিউয়ের তালিকায় এক নম্বরে জায়গা করে নিয়েছে নিশো-মেহজাবীন অভিনীত একক নাটক ‌‘শিল্পী’। এটি এখন ইউটিউবে দ্রুততম কোটি ভিউয়ের তালিকায় প্রথম।

মহিদুল মহিম পরিচালিত নাটকটি আগের সব রেকর্ড অতিক্রম করতে সময় নিয়েছে মাত্র ২৬ দিন ৯ ঘণ্টা সময়। এর আগে টানা চার বছর এ অবস্থান ধরে রেখেছিল অপূর্ব-মেহজাবীন অভিনীত মিজানুর রহমান আরিয়ানের নাটক ‘‌বড় ছেলে’। এটি কোটি ভিউ অতিক্রম করতে সময় নিয়েছে ৩৪ দিন। ‘শিল্পী’ নাটকটি আট দিন আগেই সেই মাইলফলক ছুঁয়ে দিয়ে তৈরি করেছে নতুন রেকর্ড।

গত ১৮ জানুয়ারি নাটকটি ইউটিউব চ্যানেলে উন্মুক্ত করা হয়। কোটি ভিউয়ের ঘর অতিক্রম করে ১৩ ফেব্রুয়ারি। তাই নয়, নাটকটিতে ব্যবহার করা ‘বুক চিন চিন’ ও ‘বিধি তুমি বলে দাও’ নামের দুটি পুরনো সিনেমার গানের রিমেক ভার্সনও এখন ভাইরাল।

নির্মাতা মহিদুল মহিম বলেন, ‌"পুরো বাঙালির বুক চিন চিন ধরিয়ে আমাদের ‘শিল্পী’ দেখিয়ে দিল তার প্রভাব। এটাকে আমি অবিশ্বাস্য অর্জন বলব। আমি কৃতজ্ঞতা এই নাটকের প্রধান দুই শিল্পী নিশো ভাই ও মেহজাবীন আপুকে। তাদের অভিনয়গুণেই এটা সম্ভব হয়েছে। কৃতজ্ঞতা জানাই আমার প্রযোজক পাপ্পু ভাইকে, তার সাহস ছাড়া এই কাজ সম্ভব হতো না। সবচেয়ে বড় ধন্যবাদ দর্শকদের। তারাই আমাদের মূল কারিগর।’’

দুজন স্ট্রিট সিঙ্গারের জীবন, প্রেম ও প্রতিযোগিতা নিয়ে তৈরি হয়েছে ‘শিল্পী’।

এদিকে এমন অর্জনে খুবই উচ্ছ্বসিত প্রযোজক এস কে সাহেদ আলী পাপ্পু। তিনি বলেন, ‘আরো ভালো ভালো কাজ উপহার দেওয়ার জন্য এই অর্জনটি আমাদের উৎসাহ জোগাবে। অভিনন্দন জানাই নির্মাতা মহিদুল মহিম, শিল্পী আফরান নিশো ও মেহজাবীন চৌধুরীকে। ধন্যবাদ জানাচ্ছি গণমাধ্যমের সব বন্ধুদের, যারা সব সময় আমাদের সাপোর্ট দিয়ে আসছেন। কৃতজ্ঞতা জানাই দর্শকদের প্রতি, যাদের ভালোবাসা না থাকলে এই সফলতা সম্ভব ছিল না।’

জানা গেছে, ইউটিউবের ভিউ বিচারে দ্রুততম সময়ে ১০ মিলিয়ন বা এক কোটির ঘর অতিক্রম করা ১০টি বাংলা নাটকের মধ্যে এখন এক নম্বরে আছে ‘শিল্পী’। এটি সময় নিয়েছে মাত্র ২৬ দিন। দ্বিতীয় স্থানে এখন ‘বড় ছেলে’ (৩৪ দিন)। এর পরই আছে সিএমভি প্রযোজিত পরপর দুটি নাটক- ‘এক্সচেঞ্জ’ (৫৩ দিন) ও ‘মিস্টার অ্যান্ড মিস চাপাবাজ’ (৭৩ দিন)।

এরপর রয়েছে যথাক্রমে ‘ভালোবাসি তুমি আমি’ (১৩০ দিন), ‘যমজ ১০’ (১৫৯ দিন), ‘এক্স বয়ফ্রেন্ড’ (১৭২ দিন), ‘মিশন বরিশাল’ (২০৪ দিন), ‘টম অ্যান্ড জেরি’ (২১৫ দিন) এবং ‘বুকের বাঁ পাশে’ (২৭৪ দিন)।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে