আপডেট : ২৩ এপ্রিল, ২০১৬ ২২:০৯

নগ্ন হয়ে খাবার খেতে সিরিয়াল ধরেছেন ১৬ হাজার কাস্টমার!

অনলাইন ডেস্ক
নগ্ন হয়ে খাবার খেতে সিরিয়াল ধরেছেন ১৬ হাজার কাস্টমার!

প্রিয় দলের খেলা দেখার জন্য অনেক পাগলা সমর্থক আছেন যারা অনেক আগে থেকেই টিকেট বুকিং দিয়ে রাখেন। সিনেমা দেখার জন্য অনেক সময় বুকিং দিতে হয় অগ্রিম টিকেট। অনেক সময় দামী হোটেলের ক্ষেত্রে অগ্রিম বুকিংয়ের প্রয়োজন হয় তবে তা খাওয়ার জন্য নয়। এমন যদি হয় হোটেলে খেতে যাবেন আপনাকে বুকিং দিতে হবে অনেক আগে তারপরও আপনার সিরিয়াল আসবে কয়েক হাজার লোকের পর! সেই হোটেলে আবার আপনাকে প্রবেশ করতে হবে নগ্ন হয়ে। লন্ডনে এমন এক হোটেল হচ্ছে যেখানে নগ্ন হয়ে খাবার জন্য সিরিয়ালে আছে ১৬ হাজার কাস্টমার।

আপনিও কি এই দলেই রয়েছেন? আপনিও কি নগ্ন হয়ে রেস্তোরাঁয় খাবার মজা নিতে লন্ডনের টিকিট কেটে ফেলেছিলেন? তা হলে আর একবার ভেবে দেখুন এখন যাবেন কি না। কত দিনে যে আপনি দেশে ফিরতে পারবেন তার গ্যারান্টি কিন্তু দেয়া যাচ্ছে না। কারণ, ইতিমধ্যেই নাকি এই রেস্তোরাঁয় ১৬ হাজার কাস্টমারের লাইন পড়েছে!

লন্ডনের এই থিম রেস্তোরাঁ কিন্তু এখনও চালুই হয়নি। আগামী জুন মাসে চালু হওয়ার কথা। রেস্তোরাঁর নিয়ম, প্রবেশ করা মাত্রই সকলকে জামা-কাপড় খুলে ফেলতে হবে। এমনকী আপনার সামনে জিভে জল আনা খাবারও হাজির করবেন স্বল্প বসনের কোনও এক মহিলা বা পুরুষ!

রেস্তোরাঁর মালিক সেব লায়াল জানান, খুবই খোলামেলা মনের কাস্টমার ছাড়া এই রেস্তোরাঁয় প্রবেশ নিষিদ্ধ। পাশাপাশি কেউ কোনও ছবি তুলতে পারবেন না। আর রেস্তোরাঁয় খাবার জায়গাটি এমন ভাবেই সাজানো হয়েছে যাতে কাস্টমারদের গোপনীয়তা বজায় থাকে। এখানে দু’টি আলাদা টেবিলের লোক কেউ কাউকে দেখতে পাবেন না। এই রেস্তোরাঁয় জামা-কাপড় সুরক্ষিত রাখার জন্য অনেকগুলি লকার রয়েছে। খাবার অর্ডার দিয়ে বসার আগে সমস্ত পোশাক ওই লকারেই খুলে রাখতে হবে। তবে থিম ‘নগ্নতা’ হলেও রেস্তোরাঁতে নাকি ভীষণ ভাবেই পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখা হয়েছে। রান্নার সঙ্গে যুক্ত সকলের জন্যই রয়েছে নির্দিষ্ট পোশাক।

তা হলে কি ঠিক করলেন? যাবেন নাকি একবার? কিন্তু যাওয়ার আগে একবার যাচাই করে নিন আপনি ঠিক কত নম্বরে?

উপরে