আপডেট : ২১ জুন, ২০১৬ ২২:২৮

যখন মিথ্যে বলা দোষের নয়!

অনলাইন ডেস্ক
যখন মিথ্যে বলা দোষের নয়!

সব সময় সব সত্যি কথা বলতে হবে এর কোন মানে নেই৷ কিছু মিথ্যে বলতেই পারেন৷ তার জন্যে নিজেকে দোষী ভাবার কোন কারণ নেই৷ 'সদা সত্য বলিব' আদর্শগত দিক থেকে বেশ ভালো ব্যাপার৷ কিন্তু সব ক্ষেত্রে মেনে চলা এত সহজ নয়৷ তাই জীবনের কোন কোন সময় একটু-আধটু মিথ্যে বলার স্বাধীনতা নিতেই পারেন৷ বিশেষত সম্পর্কের ক্ষেত্রে মিথ্যে বললে যদি আরও মজবুত হয়, তাহলে ক্ষতি কী?

১) ঝগড়া, মনোমালিন্য যে কোন সম্পর্কে হয়েই থাকে৷ তর্কাতর্কি করতে গিয়ে অযথা যাতে অশান্তি না বাড়ে, তা খেয়াল রাখতে হবে৷ আর এ ক্ষেত্রে আপনি একমত না হলেও তখনকার মতো ঝগড়ার নিষ্পত্তি করতে বলুন 'তুমিই ঠিক' এবং চুপ করে যান৷ এই মিথ্যেটা বলে আপনাকে হয়তো আত্মসমর্পণ করতে হলো৷ কিন্তু ভেবে দেখুন এর ফলে অশান্তির হাত থেকে রেহাই পাওয়া গেল৷ পরে না হয় মাথা ঠাণ্ডা হলে, দু'জনে আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করে নিলেন৷

২) 'এই নতুন পোশাকে আমাকে কি খুব মোটা লাগছে?' মাঝে মাঝেই স্ত্রীর এই প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয় অনেক স্বামীকেই৷ ভুলেও 'হ্যাঁ' বলবেন না৷ তা সেটা যতই সত্যি হোক না কেন৷ কারণ আপনার কাছ থেকে স্ত্রী ঠিক এর উল্টোটাই শুনতে চান৷ তাই অযথা তাঁর মুড খারাপ করে নিজের দিন নষ্ট করবেন না৷ আর এই সামান্য মিথ্যে কথা বলে স্ত্রীর মন জয় করতে পারলে ক্ষতিটাই বা কোথায়?

৩) 'আমি তোমাকে সব থেকে বেশি ভালোবাসি' এমন কথা তো আপনি আপনার পার্টনারকে প্রায়ই বলে থাকেন৷ যদিও আপনি নিজেই জানেন এই কথাটা অনেকটা অভ্যাসেই বলেন৷ কিন্তু গবেষণা বলছে এই ধরনের ভালোবাসার আশ্বাস আসলে সম্পর্কের ভিতকে আরও মজবুত করে৷ আর আপনি সেটাই নিশ্চয় চান৷

৪) এমনটা হতেই পারে আপনার হয়তো কোন কারণে মন ভালো নেই৷ আপনার পার্টনার কারণ জানতে চাইলে, সব সময় যে সত্যি কথাটা বলতে হবে তার কোন মানে নেই৷ সত্যিটা জানলে তিনিও হয়তো চিন্তিত হয়ে পড়বেন৷ তাই মিথ্যেরই আশ্রয় নিন৷ বলুন, সামান্য কোন কারণে মুড খারাপ৷ ঠিক হয়ে যাবে কিছুক্ষণ পরেই৷

মেয়েরা ভাবছেন সব শুধু  পুরুষদের জন্য? না এবার নিন আপনাদের ট্রিকস-

৫) মেয়েরা কেনাকাটা করতে ভালোবাসেন৷ একটু বেশি কেনাকাটা করে অতিরিক্ত টাকা খরচ করে ফেললে সত্যিটা বেমালুম চেপে যান৷ এ বিষয়ে স্বামী কিছু জানতে চাইলে কীভাবে ম্যানেজ করবেন সেটা আগে থাকতেই ভেবে নিন৷ মিথ্যে কথা বলে যদি অশান্তি এড়ানো যায়, তাহলে সেটাই ভালো৷

উপরে