আপডেট : ৮ এপ্রিল, ২০১৬ ১১:০৭

প্লে-অফে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ তাজিকিস্তান

অনলাইন ডেস্ক
প্লে-অফে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ তাজিকিস্তান

২০১৯ সালে এএফসি এশিয়া কাপ অনুষ্ঠিত হবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। এই টুর্নামেন্টের বাছাই পর্বের প্লে-অফে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ তাজিকিস্তিান। বৃহস্পতিবার কুয়ালালামপুরে এএফসি ভবনে অনুষ্ঠিত প্লে-অফের ড্রয়ে দল দুটি মুখোমুখি হয়।

এশিয়ান কাপ ও বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব এক সঙ্গে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সেখানে ‘বি’ গ্রুপে পাঁচ দলের মধ্যে বাংলাদেশ তলানিতে ছিল। একই গ্রুপে চতুর্থ স্থানে ছিল তাজিকিস্তান। প্লে-অফে তারাই আবার মুখোমুখি হচ্ছে।

গ্রুপ পর্বের লড়াইয়ে তাজিকিস্তান ও বাংলাদেশ হোম-অ্যাওয়ে ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল। নিজেদের মাঠে বাংলাদেশ ১-১ গোলে ড্র করেছিল। কিন্তু তাজিকিস্তানের মাটিতে খেলতে গিয়ে হেরেছিল ৫-০ গোলে।

এএফসির নতুন ফরম্যাটে ২০১৯ সালে আমিরাতে অনুষ্ঠেয় এশিয়ান কাপের চূড়ান্তপর্বে খেলবে মোট ২৪টি দেশ। বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে প্রতিটি গ্রুপের শীর্ষ আট দল ও সেরা চার রানার্সআপসহ মোট ১২টি দল এশিয়া কাপের টিকিট নিশ্চিত করেছে।

আট গ্রুপের মোট ৪০ দলের মধ্যে বাকি থাকে ২৮ দল। ইন্দোনেশিয়ার সদস্য পদ ফিফা স্থগিত করলে তারা বাদ পড়ে যায়। বাকি ২৭ দল থেকে আরো ১২টি দল এশিয়া কাপে খেলার সুযোগ পাবে।

এই দলগুলোর মধ্যে গ্রুপ পর্বে ভালো পারফরম্যান্স করা ১৬ দল সরাসরি বাছাই পর্বের চূড়ান্ত রাউন্ডে খেলার সুযোগ পাচ্ছে। বাকি ১১ দলের র‌্যাংকিং করা হয়। সেখান থেকে সেরা ১০টি দলকে নিয়ে প্লে-অফ পর্ব সাজানো হয়। আর ১১তম স্থানে থাকা ভুটানকে পরের রাউন্ডের জন্য রেখে দেয়া হয়।

প্লে-অফে খেলার সুযোগ পাওয়া ১০ দলের মধ্যে বিজয়ী পাঁচটি দল বাছাই পর্বের চূড়ান্ত রাউন্ডে চলে যাবে। হেরে যাওয়া পাঁচটি ও ভুটানসহ মোট ছয় দল নিয়ে দ্বিতীয় রাউন্ড অনুষ্ঠিত হবে। এখান থেকে বিজয়ী তিনটি দলও বাছাই পর্বের চূড়ান্ত রাউন্ডে খেলার সুযোগ পাবে।

প্লে-অফে হেরে গেলে দ্বিতীয় রাউন্ডে ভুটানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ওই ম্যাচে জিতলে বাছাই পর্বের চূড়ান্ত রাউন্ডে খেলার সুযোগ পাবে। সেই চূড়ান্ত রাউন্ড থেকে ১২ দল এশিয়া কাপে খেলার সুযোগ পাবে।

প্লে অফে যে যার প্রতিপক্ষ:

১. চায়নিজ তাইপে বনাম কম্বোডিয়া

২. মালদ্বীপ বনাম ইয়েমেন

৩. বাংলাদেশ বনাম তাকিজিস্তান

৪. মালয়েশিয়া বনাম তিমুর লেস্টি

৫. ভারত বনাম লাওস

উপরে