আপডেট : ২৬ জুন, ২০২০ ২১:২৫

ভারতের সঙ্গে পানি নিয়ে উত্তেজনা! যা জানালো ভুটান

অনলাইন ডেস্ক
ভারতের সঙ্গে পানি নিয়ে উত্তেজনা! যা জানালো ভুটান

সীমান্তে চীন ও নেপাল সঙ্গে উত্তেজনা বিরাজ করছে ভারতের। পরিস্থিতি এমন যে পুরো ভারতের মনোযোগ এখন লাদাখ সীমান্তে চীনের সঙ্গে সামরিক সংঘর্ষ কিংবা নেপালের ভারতীয় এলাকা অন্তভূর্ক্ত করে মানচিত্র প্রকাশের দিকে। এমন পরিস্থিতেতে আলোচনায় আসে ভুটান। জানা যায়, নীরবে আসাম রাজ্যের বাকসা জেলা দিয়ে প্রবাহিত চ্যানেলের মাধ্যমে ভারতীয় কৃষকদের দেওয়া পানির প্রবাহ বন্ধ করে দিয়েছে ভুটান।

তবে আসামের কৃষকদের সেচের পানি আটকানো নিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদকে ভিত্তিহীন বলছে ভুটান। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, এমন সংবাদ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ করতে ইচ্ছাকৃতভাবে এমন সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। এটি ভুল বোঝাবুঝি। খবর-এনডিটিভির।

খবরে বলা হয়েছে, শুক্রবার ভুটানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতে জানানো হয়েছে, গত ২৪ জুন ভারতীয় একাধিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে আসামের কৃষকদের সেচের পানি আমরা আটকেছি। এতে সমস্যায় পড়েছেন বাকসা ও উদালগুড়ির কৃষকরা। এটা অত্যন্ত ভয়াবহ অভিযোগ। তাই পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় স্পষ্ট করতে চায় এই ধরনের সংবাদ ভিত্তিহীন। ভুটানের পানি বন্ধ করার মতো কোনো কারণ নেই।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ভুটান ও আসামের বন্ধুত্বপূর্ণ সহাবস্থানে ফাটল ধরানোর চেষ্টায় এই খবর ছড়ানো হয়েছে।

এই বিবৃতির একদিন আগে (বৃহস্পতিবার রাতে) আসামের মুখ্যসচিব কুমার সঞ্জয় কৃষ্ণা টুইট করে বলেন, এই প্রতিবেদন সঠিক নয়। প্রাকৃতিক কারণে পানি বন্ধ হয়েছে।

ভুটানের প্রকাশ করা ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়, কয়েক দশক ধরে বাকসা ও উদালগুড়ি আমাদের পানি পেয়ে সমৃদ্ধ। আগামী দিনেও সেই পানি পাবে। এমনকি, এই করোনা সঙ্কটের মুহূর্তেও সেই পানি পেয়েছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে