আপডেট : ৩১ জুলাই, ২০২০ ১০:৫৮

পুলিশ তুলে দিচ্ছিল, ইংরেজিতে রাগ ঝাড়লেন সবজি বিক্রেতা এই নারী!

অনলাইন ডেস্ক
পুলিশ তুলে দিচ্ছিল, ইংরেজিতে রাগ ঝাড়লেন সবজি বিক্রেতা এই নারী!

ভারতের ইন্দোরে ঘটেছে এক হৃদয়স্পর্শী ঘটনা। প্রশাসনের পক্ষ থেকে করোনার কারণে একজন সবজিওয়ালাকে তুলে দেয়া হচ্ছিল। এর প্রতিবাদে ঐ সবজিওয়ালা বৃদ্ধা ইংরেজিতে রাগ ঝাড়তে শুরু করেন। তিনি বলেন, তার দোকানের সামনে লোকজনের ভিড় নেই। সবাই দূরত্ব বজায় রেখে দাঁড়িয়ে সবজি কিনছেন। তবুও প্রশাসন তাকে তুলে দিচ্ছে। আর এত সব কথা তিনি বলছেন ঝরঝরে ইংরেজিতে।

তার মুখে ইংরেজি শুনে স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠে অতীত জীবনে তিনি কী করছেন। গণমাধ্যমকে ঐ মহিলা জানান, তিনি পদার্থবিদ্যায় মাস্টার অফ সায়েন্স করেছেন। তারপর আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১১ সালে পদার্থবিদ্যায় পিএইচডি করেছেন। তারপরও চাকরি পাননি।

সেই সবজি বিক্রেতা বললেন, 'বেসরকারি চাকরি করতে চাইনি। কিন্তু সরকারি চাকরি আমাকে কে দেবে! আমি তো মুসলিম। আমার নাম রায়সা আনসারি।

তার কথায় উঠে আসে আরো অনেক সত্য, এমনিতেই মুসলিমরা করোনা ছড়াচ্ছে বলে চারদিকে গুজব রটছে। আমিও মুসলিম। আর এটা জানার পরই কোনও কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় আমাকে চাকরি দিতে চায় না। এবার প্রশাসনই বলে দিক আমি কী করব! কোথায় যাব! সংসার তো চালাতে হবে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে