আপডেট : ৪ জুন, ২০১৬ ১২:৩৮

আম খান হিসেব করে!

অনলাইন ডেস্ক
আম খান হিসেব করে!

আমাদের দেশে গ্রীষ্মের রসালো ফলের মধ্যে আম অন্যতম। পুষ্টিগুণে ভরপুর এই ফল শরীরের ভিটামিনের অভাব পূরণের পাশাপাশি কর্মশক্তিও যোগায়। তবে সবসময়ই কি আম খেলে উপকার পাওয়া যায়?

বাজারে এখন আমের রমরমা অবস্থা। ফলের রাজা রসাল এই ফলটি খেতে কার না ভাল লাগে। তবে একটু বুঝেশুনে খাবেন। লোভে পড়ে খুব বেশি আম খাওয়া কিন্তু ভাল নয়। হিতে বিপরীত ঘটতে পারে।

জেনে নিন বেশি আম খাওয়ার কুফল:
১. পাকা আমে প্রচুর পরিমাণ সুগার আছে। যার ফলে বেশি আম খেলে রক্তে শর্করা বেড়ে যাবে। ডায়াবেটিসের সম্ভাবনা তৈরি হয়।

২. মাঝারি মাপের একটি পাকা আমে ৩ গ্রাম ফাইবার থাকে। আপনি যদি আমের প্রতি লোভ সংবরণ করতে না পেরে পরপর আম খেয়ে ফেলেন তাহলে ডায়েরিয়ার সম্ভাবনা থাকে।

৩. প্রতি মাঝারি মাপের পাকা আমে ৩১ গ্রাম সুগার থাকে। যদিও তা স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর নয়। কিন্তু অত্যধিক আম খেলে তা একজনের পক্ষে ক্ষতিকর হতে পারে। ওজন বৃদ্ধি পেতে পারে

৪. আমের খোসা অনেক ক্ষেত্রে অ্যালার্জি ঘটাতে পারে। কারণ, কাঁচা আম পাকাতে গেলে ক্যালসিয়াম কার্বাইড-র মতো বেশ কিছু রাসায়নিক ব্যবহার করা হয়। যা ত্বকে অ্যালার্জির কারণ হতে পারে।

৫. পাকা আমে ইউরুশিয়ল নামে এক রাসায়নিক থাকে। যা ত্বকে প্রদাহ সৃষ্টি করে। খুব বেশি আম খেলে দেহে এই রাসায়নিকের মাত্রা বৃদ্ধি পায়।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/বুলা

উপরে