আপডেট : ৫ অক্টোবর, ২০১৬ ১০:৩১

এম এস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি

অনলাইন ডেস্ক
এম এস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি

যদি আপনি মহেন্দ্র সিং ধোনি এবং ক্রিকেটের ডাইহার্ড ফ্যান হন তাহলে এ ছবি আপনার মন টানবেই। সামান্য পরিবেশ থেকে উঠে এসে ভারতের সফলতম ক্রিকেট ক্যাপ্টেনের তকমা পাওয়াটা সহজ নয়। সেই কঠিন কাজটাই তুলে ধরা হয়েছে ধোনির বায়োপিক 'এমএস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি'-তে। গোটা ছবিতে অনেক ছোট ছোট মুহূর্তের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে এক অসাধারণ জীবন সফরের ছবি। রেলের টিকিট চেকার থেকে বিশ্বকাপজয়ী ক্যাপ্টেনের অবিশ্বাস্য সাফল্যের যাত্রাপথ ধরা পড়েছে সুন্দরভাবে।
ধোনির চরিত্র যথাযথ ভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন সুশান্ত সিং রাজপুত। এমএসডি-কে পুরোপুরি কপি না করেও খেলার মাঠে টিম ইন্ডিয়ার ক্যাপ্টেনের আগ্রাসী মনোভাব, তাঁর হেলিকপ্টার শটে মাহিরই প্রতিচ্ছবি মনে হচ্ছিল সুশান্তকে। ধোনির ভেতরের লড়াই সুন্দরভাবে ফুটেছে তাঁর অভিনয়ে। অভিনয়ের কথা বলতে বিশেষভাবে উল্লেখ করতে হয় যুবরাজ সিং-এর চরিত্রে হেরি টাংরির কথা।
ছবির প্রথমার্ধে রাঁচিতে ধোনির জীবন যেভাবে তুলে ধরেছেন পরিচালক নীরজ পাণ্ডে নিঃসন্দেহে তা প্রশংসার যোগ্য। বাস্তবের সঙ্গে সাযুজ্য বজায় রাখা হয়েছে। খড়গপুর স্টেশনের একটা দৃশ্যে দেখা যায় উল্টোদিক থেকে আসা বহু মানুষের ব্যুহ ভেদ করে বেরোতে চাইছেন ধোনি। এই একটা দৃশ্যেই ধোনির প্রায় গোটা জীবনটাই তুলে ধরেছেন নীরজ। বরাবরই এভাবেই স্রোতের উল্টোদিকে হেঁটে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করেছেন তিনি।
তবে ধোনির বায়োপিকের সবচেয়ে বড় দুর্বলতা ধোনিই। ভারতের সফলতম ক্যাপ্টেনের চরিত্রে বিতর্কের দিকগুলো সযত্নে এড়িয়ে গিয়েছেন পরিচালক। ছবির দ্বিতীয়ার্ধ এমনিতেই সেভাবে চোখ টানে না। ক্রিকেটার ধোনির যে সব সিদ্ধান্ত বিভিন্ন সময়ে প্রশ্নের মুখে পড়েছে, ছবিতে সে সব কিছুর উল্লেখ নেই। সেহবাগ, গম্ভীরদের মতো দলের সিনিয়র ক্রিকেটারদের সঙ্গে ধোনির ঝামেলা, যুবরাজ সিং-এর সঙ্গে তাঁর প্রতিদ্বন্দিতা এই বিষয়গুলো এড়িয়ে যাওয়া হয়েছে বায়োপিকে।

ছবিটিতে অভিনয় করেছেন সুশান্ত সিং রাজপুত, অনুপম খের, রাজেশ শর্মা, দিশা পাতানি, কিয়ারা আডবানি, ভূমিকা চাওলা। ছবির পরিচালক নীরজ পাণ্ডে।

উপরে