আপডেট : ৫ জুন, ২০১৬ ২২:১৭

‘বোরখা, হিজাব,ইসলামে বিশ্বাস কিছুই মিতুকে বাঁচাতে পারেনি’

বিডিটাইমস ডেস্ক
‘বোরখা, হিজাব,ইসলামে বিশ্বাস কিছুই মিতুকে বাঁচাতে পারেনি’

রোববার সকালে দূর্বৃত্তদের গুলি ও কোপের আঘাতে নিহত হয়েছেন পুলিশ সুপার বাবুল আকতারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু। তাকে নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন বাংলাদেশী নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। তিনি লিখেছেন ‘বোরখা, হিজাব,ইসলামে বিশ্বাস-- কিছুই মিতুকে বাঁচাতে পারেনি’। তার পুরো স্ট্যাটাসটি তুলে ধরা হলো।

পুলিশ সুপার বাবুল আকতারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতুকে কুপিয়েছে তো বটেই, আবার গুলিও করেছে মুসলিম সন্ত্রাসীরা। মিতু হিজাবি ছিলেন। মাথায় কাপড়ের বিড়া বাঁধতেন। তাঁকেও রেহাই দেয়নি । মিতু কি কখনও ইসলামের সমালোচনা করেছিলেন ? না, করেননি। তবে মিতুর স্বামী চট্টগ্রামে ইসলামী সন্ত্রাসীদের একটি আস্তানার সন্ধান পেয়েছিলেন, সেখান থেকে প্রচুর বিস্ফোরক উদ্ধার করেছিলেন এবং পাঁচ সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করেছিলেন। বাবুলকেই হয়তো ওরা খুন করতে চেয়েছিল, না পেয়ে তাঁর হিজাবি স্ত্রীকেই খুন করেছে। বোরখা, হিজাব,ইসলামে বিশ্বাস-- কিছুই মিতুকে বাঁচাতে পারেনি। এই খুনের মাধ্যমে ওরা জানিয়ে দিয়েছে,ওদের বিরুদ্ধে কেউ এক পা এগোলে সে খুন হবে নয়তো তার পরিবারের লোক খুন হবে।

ওদিকে নাটোরে সুনীল গোমেজ নামের এক খ্রিস্টান ব্যাবসায়ীকে কুপিয়ে মেরেছে সন্ত্রাসীরা। দিশি আইসিস আবার বুক ফুলিয়ে বলেও দিয়েছে যে খুন তারাই করেছে। তারা হিন্দু,বৌদ্ধ, খ্রিস্টান, শিয়া, আহমদিয়া, নাস্তিক, মৌলবাদ-বিরোধী-সুন্নিআস্তিক অথবা সন্ত্রাস-বিরোধী-সুন্নিআস্তিক --- সবাইকেই কুপিয়ে খুন করবে। এবং এ কারণে তাদের কোনও শাস্তি হবে না। দেশের সরকার ভান করবে যেন কিছুই ঘটেনি, বিদেশি সন্ত্রাস-বিরোধী শক্তিও এ পোড়া দেশে ঢুকে সন্ত্রাস দমনের চেষ্টা করবে না।

সন্ত্রাসীদের জন্য বাংলাদেশের মতো চমৎকার আর নিরাপদ দেশ আর দ্বিতীয়টি নেই পৃথিবীতে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে

উপরে